বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে মায়ের ভালোবাসায় বেড়ে উঠছে সিংহ শাবক

0
124
জন্ম নেয়া পুরুষ শাবকটি মায়ের সাথে খেলা করছে।

মোশারফ হোসাইন তযু-নিজস্ব প্রতিবেদক: চলতি বছরের ৪ মে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে সিংহ বেষ্টনীতে একটি ঘরের ভেতর একটি পুরুষ শাবকের জন্ম দেয় এক সিংহী। সিংহের নিরাপত্তা ও বিভিন্ন রকমের জটিলতার কারণে আড়াই মাস পর গণমাধ্যমের কাছে বিষয়টি জানান সাফারি পার্ক কর্তৃপক্ষ। এ নিয়ে পার্কে সিংহের সংখ্যা ১৫টি হলো।

সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (সহকারী বন সংরক্ষক) মো.তবিবুর রহমান তথ্য নিশ্চিত করে শ্রীপুর বার্তাকে জানান, বাঘ ও সিংহ বেষ্টনীতে আলাদাভাবে রাস্তার কাজ চলছিল। এক পর্যায়ে গত ৪ মে বেষ্টনীতে একটি ঘরের ভেতর সিংহ শাবকটি জন্ম নেয়। এর আগেও এ পার্কে আরও সিংহ জন্ম নেয়। নতুন সিংহ শাবকটি আফ্রিকান জাতের। বর্তমানে সিংহ শাবকটির বয়স আড়াই মাস। সিংহ শাবকটি বর্তমানে সুস্থ এবং মায়ের সঙ্গে আছে। শাবকটি এখনো বাড়তি কোনো খাবার খাওয়া শেখেনি, শুধু তার মায়ের দুধ পান করছে ।

তিনি আরোও জানান, বর্তমানে এ পার্কে চারটি সাদা সিংহ রয়েছে, একটি মাদি ও তিনটি পুরুষ। এছাড়াও ব্রাউন সিংহ রয়েছে ১২টি। তিনি বলেন, জন্মের সময় বাচ্চাদের সাধারণত চোখ ফুটে না। এদের চোখ ফুটতে ১০-১৩ দিন সময় লাগে। জন্মের সময় এদের ওজন ১-৫ কেজি পর্যন্ত হয়ে থাকে। এ সময় বাঘিনী বাচ্চাকে নিয়ে জঙ্গলের আড়ালে রেখে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখে। শাবকরা ১৫-২০ দিনে হাঁটতে শেখে। ৪-৫ মাস বয়স থেকে মায়ের দুধের পাশপাশি অন্য খাবার খাওয়ানো শেখানো হয়। এদের প্রধান খাদ্য গো মাংস।

শাবক

তিনি বলেন, এদের আয়ুকাল পুরুষ ১০-১২ বছর এবং মাদি ১২-১৩ বছর। পূর্ণ বয়ষ্ক মাদি সিংহের দৈর্ঘ ৪ ফুট, ওজন ১৫০-২০০ কেজি এবং পুরুষদের দৈর্ঘ ৬ ফুট ও ওজন ২০০-৩০০ কেজি পর্যন্ত হয়ে থাকে। প্রতিদিন পর্যটকরা সাফারি পার্কে থাকা এসব প্রাণি দেখতে ভিড় জমিয়ে থাকে। দিন দিন এখানে প্রাণিরা শাবক জন্ম দিচ্ছে, আকর্ষণ বাড়ছে পর্যটকদের ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here