রাস্তার পাশে ময়লা নয় দূষিত পানিতে চাষ নয়

0
152
লেখক: সাঈদ চৌধুরী

সাঈদ চৌধুরী :

গড়গড়িয়া মাস্টার বাড়ির ঢাকা – ময়মনসিংহ হাইওয়ে রাস্তার পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া খাল ছবিতে দেখা যাচ্ছে । হাইওয়ের পাশেই আরেকটি ময়লার ভাগার ইচ্ছে করে গড়ে তোলা হচ্ছে ! রাস্তার পাশে যতন করে সেখানে বৃক্ষ লাগানো, ঘাস চাষ করার কথা সেখানে কিছু মানুষের অমনোযোগীতা ও অব্যবস্থাপনার কারণে রাস্তার সবচেয়ে সুন্দর অংশটিই এখন সবচেয়ে খারাপ জায়গা ! কি সুন্দর করে আমরা আমাদেরকে নষ্ট করতে জানি তাই না ?
ময়লা ফেলার জন্য নির্দিষ্ট জায়গা থাকবে সেখানে আলাদা আলাদা করে ময়লা নির্বাচন করে তা থেকে সার তৈরী হবে, ইলেক্ট্রিক ময়লাগুলো আলাদাভাবে ব্যবস্থাপনায় আনতে হবে এবং দূষক ময়লাগুলো চিহ্নিত করে তা বিলুপ্ত করার ব্যবস্থা করতে হবে । আর এখানে কি হচ্ছে ? 

ভ্যান এসে খালের পানির মধ্যে সরাসরি ময়লা ফেলে চলে যাচ্ছে । ছবিতে স্পষ্ট আমরা কতটা রুঢ় প্রকৃতির সম্পদ নষ্ট করায় !
আরেকটি বিষয় খেয়াল করুন । খালের দূষিত পানির পাশেই চাষ হচ্ছে সবজি, ধান । অনেক সময় এই দূষিত পানি গুলোই সেচের জন্য সবজিতে দিয়ে দেয়া হচ্ছে । কৃষকরা জানেই না দূষিত পানি ফসলে দিলে কি হয় ! যতদূর পর্যন্ত এই খাল বিস্তৃত ততদূর পর্যন্তই এই অসচেতনতা গুলো আছে । একদিকে ময়লা ফেলে দূষণ করা হচ্ছে বায়ুর এবং পানির অন্য দিকে সেগুলোই আবার খাইয়ে দেয়া হচ্ছে ফসলের মাধ্যমে !

এই জায়গাটুকু পরিস্কার করা খুব প্রয়োজন । একটা সময় অনেক গরমের পর এখানে এসে দাঁড়ালে গা শীতল হয়ে উঠত, মন নরম হয়ে যেত দূর থেকে ধানের গন্ধ বয়ে নিয়ে আসা বাতাসে আর এখন সেখানে শুধুই তাপ আর তাপ । প্রায়ই ময়লা পোড়া ধুমো এমনভাবে চোখে এবং মুখে এসে লাগে যা সড়ক দুর্ঘটনারও বড় কারণ হতে পারে । কারণ ধুমোর কারণে পাঁচ গজ সামনেও স্পষ্ট দেখা যায় না এবং এখানেই গাড়ি গুলোর গতি থাকে অনেক বেশী ।

মাওনা হাইওয়ে পুলিশ অনেকগুলো ভালো কাজ করে ইতিমধ্যেই সুনাম অর্জন করেছে এবং বিশেষ করে ফ্লাইওভারের নিচে পরিস্কার করন কাজ ও মাওনা চৌড়াস্তার ফুটপাত পরিস্কার করার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি । আমি বিনীত ভাবে নিবেদন জানাচ্ছি এই বিষয়টির উপরও দৃষ্টিপাত করার জন্য এবং সাথে সাথে সাধারণ মানুষেরও এ ব্যপারে সচেতন হওয়ার জন্য আবেদন করছি । আশা করছি প্রশাসনও এ ব্যপারে বড় ভূমিকা রাখবেন । সকলে মিলে একটি কাজ করলে তা সবার জন্যই সুন্দর বয়ে নিয়ে আসবে ।


লেখক পরিচিতি

সদস্য, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি

ও রসায়নবিদ

শ্রীপুর, গাজীপুর।

শ্রীপুর বার্তা : প্রকাশ ৪ নভেম্বর ২০১৭:

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here