বদলে যাচ্ছে পর্যটন খাতের চেহারা

0
190

শ্রীপুর বার্তা ডেস্ক

বদলে যাওয়া বাংলাদেশ আজ উন্নয়নে অদম্য। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের উন্নয়নহীনতাকে পেছনে ফেলে, একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় এগিয়ে যাচ্ছে বর্তমান সরকার। নেয়া হচ্ছে একের পর এক উন্নয়ন প্রকল্প। উন্নয়নের এই বাংলাদেশে এমন অনেক ইতিবাচক কাজ হচ্ছে, যা কেউ ভাবেনি আগে।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, আগামী প্রজন্মের জন্য সত্যিকার অর্থেই ‘বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা’ একটু একটু করে দৃশ্যমান হচ্ছে। এ ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে অচিরেই বাংলাদেশ উন্নত দেশের তালিকায় লিপিবদ্ধ হবে বলেও জানান তারা। সরকারের নয় বছরে তৈরি পোশাক শিল্প খাতের পর পর্যটন খাত রাজস্ব আদায়ের বিশাল সম্ভাবনার দ্বার উন্মুক্ত করেছে । গত বছর অর্থাৎ ২০১৬-২০১৭ সালে বাংলাদেশে ১ কোটির বেশি মানুষ বিভিন্ন পর্যটন স্পটে ভ্রমণ করেছেন। এর মধ্যে দেশী-বিদেশী সব ধরণের পর্যটক রয়েছেন। বিশ্বের অন্যতম ম্যানগ্রোভ বন সুন্দরবন। তিন পার্বত্য জেলা ও সিলেট অঞ্চলজুড়ে রয়েছে প্রকৃতির লীলাভূমি। পৃথিবীর বৃহত্তম সমুদ্রসৈকত সমৃদ্ধ কক্সবাজার। এছাড়া বেশকিছু ঐতিহাসিক ও প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনও আছে, যা পর্যটকদের মনে আগ্রহ জাগাতে পারে। দিনে দিনে বাংলাদেশে পর্যটনে আগ্রহী মানুষের সংখ্যা বাড়ছে। ফলে দারুণ সম্ভাবনাময় একটি খাত হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে পর্যটন শিল্প।

২০২৫ সালের মধ্যে পর্যটন শিল্পের সর্বোচ্চ বিকাশে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। পুরো দেশকে আটটি পর্যটন জোনে ভাগ করে প্রতিটি স্তরে এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করার কথা বলা হয়েছে । ২০১৬-২০১৮ পর্যন্ত তিন বছরকে পর্যটন বর্ষ ঘোষণা করে নানা উদ্যোগ এবং পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। ২০০৯ সাল থেকে গত নয় বছরে ছয় হাজার ৬৯৯ দশমিক ১৬ কোটি টাকা পর্যটন শিল্পের মাধ্যমে আয় হয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশের পর্যটন খাত জিডিপিতে ২ দশমিক ১ শতাংশ অবদান রাখছে। সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো পর্যটকদের জন্য বিশেষ প্যাকেজ চালুর উদ্যোগ গ্রহণ করায় এ খাতে প্রাণচাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। পর্যটন শিল্পে বাংলাদেশ আজ বিশ্বজুড়ে সমাদৃত। এ খাতে বর্তমান সময়ে উড়াল দেয়ার জন্য প্রস্তুত বাংলাদেশ। আর বর্তমান সরকারের শাসনামলে এটি একটি অন্যতম সাফল্য। সরকারের সময়োপযোগী পদক্ষেপের ফলে আগামী কয়েক বছরে বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পের চেহারাই অনেকটা বদলে যেতে পারে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here