আমাদের প্রাণ প্রিয় সন্তানেরা

0
81
ফাইল ছবি
  • ড. মোহাম্মদ অাসাদুজ্জামান চৌধুরী

আমাদের প্রাণ প্রিয় সন্তানেরা, তোমরা আমাদের আগামীর ভবিষ্যত | তোমাদের কঁচি মনের আকুতি আমাদের মমতাময়ী মা আমাদের একমাত্র আশা ভরসারস্থল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খুব কাছ থেকে শুনেছেন ও দেখেছেন | তিনি তোমাদের সব দাবিই মেনে নিয়েছেন কারণ তিনি তোমাদের বিশ্বাস করেন, ভালোবাসেন |

তোমরা জানো এই অগাস্ট মাস শোকের মাস | আমরা হারিয়েছি আমাদের অমূল্য সম্পদ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে | আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যিনি আমাদের দেশকে নিজের হাত ধরে উন্নত একটি দেশে পরিণত করার জন্য রাত দিন অক্লান্ত প্ররিশ্রম করে চলেছেন | তিনি তো এই মাসে সব হারিয়েছেন | একজন নিষ্পাপ শিশু রাসেল, যদি তোমরা একটিবার তাঁর ছবির দিকে তাকাও, খুব মায়াবী মুখ একদম তোমাদের মুখগুলোর মতো, কষ্টে বুকটা কেঁদে উঠবে | তাঁকে গুলি করে মেরেছে খারাপ মানুষেরা | শেখ রাসেল আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আদরের ছোট ভাই |

এই মাসে আমাদের মমতাময়ী মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাবা, মা, ভাই, ভাবী সহ পরিবারের সবাইকে হারিয়েছেন | ঐ যে বললাম খারাপ মানুষদের কথা তারা গুলি করে তাঁদের মেরে ফেলেছে | আমরা আজ যে বাংলাদেশে মাথা উঁচু করে বেঁচে আছি, সেই দেশটি আমাদের দিয়েছেন আমাদের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান | আগে আমরা কি ছিলাম জানো | আগে আমরা পাকিস্তানের কথা মতো উঠতে বসতে হতো |

আমরা কথা বলতে পারতাম না | আমরা বড়ো বিজ্ঞানী, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, চাকুরীজীবি, বড়ো শিক্ষক কিছুই হতে পারতাম না | তারা আমাদের দেশের সম্পদ তাদের ওখানে নিয়ে যেত | কথায় কথায় আমাদের মেরে ফেলতো | আমাদের ওরা মানুষই ভাবতোনা | ভাবতো ওদের দাস (কেনা চাকর ) | আরও কত কি অত্যাচার | ওদের কাছ থেকে আমাদের স্বাধীন দেশ দিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান | কিন্তু ওরা ওদের কিছু লোক আমাদের দেশে রেখে দিলো, যারা খুব খারাপ ঠিক ওদের মতো | ঐ খারাপ মানুষগুলো আগের কথাগুলো আমাদের জানতে দেয়নি | তারা বাংলাদেশ, তোমার আমার দেশ অনেক বড়ো হোক, উন্নত হোক এটা চায়নি |

এই মাসের ১৫ তারিখ তারা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ তাঁর পরিবারের সকলকে মেরে ফেললো | আমরা হারালাম জাতির পিতাকে | আর আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথা চিন্তা করো তো উনি সব হারালেন | কেন তিনি সব হারালেন | আমাদের জন্য, দেশের জন্য | উনার জন্য এই মাসটা, প্রতিটা সময় কত কষ্টের, কত কান্নার, কত আবেগের বুঝতেই পারো | আমাদের প্রাণ প্রিয় সন্তানেরা, যে খারাপ লোকগুলো

আমাদের বাংলাদেশ চায়নি, যারা আমাদের জাতির পিতাকে হত্যা করেছে তারা কিন্তু এখনো আমাদের দেশে থেকে গেছে | তাদের সাথে বিদেশের খারাপ মানুষগুলোও আছে | তোমরা রাজনীতি বুঝবেনা বড়ো হও তখন জানতে পারবে | এজন্য খারাপ মানুষদের কথা বলছি ও তাদেরকে তোমাদের কাছে চিনিয়ে দিচ্ছি | তোমাদের সব কথা আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মেনে নিয়েছেন | তোমাদের আবেগকে দেখেছেন খুব কাছ থেকে | কিন্তু আমাদের একটাই ভয়, ঐ খারাপ মানুষগুলো তোমাদের মধ্যে ঢুকে গিয়ে তোমাদের কোনো ক্ষতি করে কিনা | ওরা সব সময় খারাপ কিছু করার জন্য বসে আছে | কিভাবে একটা ভালো জিনিসকে খারাপ করে মানুষকে মেরে ফেলা যায় সব সময় এই চিন্তা করছে | তোমরা ইবলিশ শয়তান আর রাবনের নাম শুনেছ হয়তো | ওরা ঠিক ওদের মতো, খুব খারাপ মানুষ ওরা, খারাপের খারাপ | আমাদের দেশ যখন এগিয়ে চলেছে, যখন আমরা আবার আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে দেশের দায়িত্ব দিতে চাই তখন তারা অনেক খারাপ কিছু করার বিষয় নিয়ে ভাবছে | প্রথমে মনে হতে পারে ভালো কিন্তু শেষে দেখবে খুব খারাপ কিছু ঘটে গেছে | এটাই

খারাপ মানুষগুলোর চালাকি | আমাদের প্রাণের চেয়েও প্রিয় সন্তানেরা, তোমাদের জীবন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে অমূল্য সম্পদের মতো, তিনি তোমাদের ভালোবাসেন, তোমাদের আগামীদিনগুলো কিভাবে আরও বেশি ভালো করা যায় তা নিয়ে কাজ করে চলেছেন | তোমরা জানো আমাদের পাশের দেশ মায়ানমার বা বার্মা থেকে যখন লক্ষ লক্ষ মানুষ তাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছিলো | মা ও শিশুদের মেরে ফেলা হচ্ছিলো, তখন পৃথিবীর কোনো দেশ তাদের আশ্রয় দেয়নি | আমাদের মমতাময়ী মা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তোমাদের মতো শিশুদের কথা ভেবে, তাদের মায়েদের কথা ভেবে আমাদের দেশে তাদের থাকতে দিয়েছেন |

বুঝতে পারো কত বড়ো মন উনার, কত বেশি মানুষকে ভালোবাসেন উনি | তিনি তোমাদের সব কিছুই মেনে নিয়েছেন | তিনি যেটা বলেন সেটাই করেন | এখন তোমরা আর রাস্তায় থেকোনা | বাড়িতে ফিরে যাও, আগের মতো মন দিয়ে পড়াশুনা শুরু করো | খারাপ মানুষরা তোমাদের ভুল বুঝিয়ে খারাপ পথে আনতে চাইবে | সেটা হতে দেওয়া যাবেনা | তোমাদের নিরাপত্তা আমাদের কাছে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ | এর থেকে আর কিছু নয় | এই খারাপ মানুষগুলো ফেসবুকে ও অন্যান্য মাধ্যমে নিজেদের বানানো ছবি দিচ্ছে, গুজব ছড়াচ্ছে, মিথ্যে কথা বলছে | তোমরা এগুলো যাচাই ও বোঝার চেষ্টা করবে |

তোমাদের প্রযুক্তির জ্ঞান যাতে ওদের খারাপ উদ্দেশ্যের কাছে হেরে না যায় | আশা করি ও বিশ্বাস করি তোমাদের মতো মায়াবী ও মেধাবী মুখগুলো আমার সহজ সরল কথাগুলো বুঝবে | এই আত্মবিশ্বাস আমাদের সন্তানদের প্রতি আমাদের আছে | সবাই ভালো থেকো, ভালো মানুষ হও, বড়ো হও আর দেশের জন্য ভালো চিন্তা করো |

অধ্যাপক, ঢাকা প্রকৌশলী ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, গাজীপুর।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here